ঘড়ির কদর কমেনি,তাইতো দাম শতকোটি!

0
128

ডিজিটাল যুগে অনেকগুলো পণ্যের ব্যবহার কমিয়ে এক ডিভাইসে এনে দিয়েছে স্মার্টফোন। কথা বলা বা যোগাযোগের বাইরেও ঘড়ি, ক্যালকুলেটর, অ্যার্লাম ঘড়ি এমনকি কম্পিউটারের প্রায় সব কাজই করা যাচ্ছে হাতের ফোন সেটে। তারপরও ফ্যাশনে ঘড়ির অবস্থান একটুও কমেনি।

বিশ্ববাজারে ঘড়ির দাম দেখলেও বোঝা যায়, এর কদর করতে জানেন ধনকুবেররা। তাই তো অবিশ্বাস্য দামের ঘড়ি রয়েছে।

বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ঘড়ি গ্র্যাফট জুয়েলারির গ্রাফ ডায়মন্ড হ্যালুসিনেশন। ৫৫ মিলিয়ন ডলার (৪৬৪ কোটি টাকার বেশি) মূল্যের ঘড়িটি প্লাটিনাম ও হিরা দিয়ে তৈরি। মজার বিষয় হচ্ছে ঘড়িটি নারীদের জন্য। তাদের হাতের ব্রেসলেটের ডিজাইনেই অস্যংখ রঙিন হিরা ব্যবহার করা হয়েছে এতে।

শুধু কি সময় জানতে? পুরুষের ব্যক্তিত্ব ‍আর স্মার্টনেস তুলে ধরতেও ঘড়ির জুড়ি নেই। পুরুষের জন্য তৈরি পাটেক ফিলিপ রেফারেন্স বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ঘড়ির তালিকায় সপ্তম স্থানে রয়েছে। স্টেইনলেস স্টিলের তৈরি ঘড়িটির মূল্য ১১ মিলিয়ন ডলার (৯২ কোটি টাকার বেশি)।

নিজের জন্য বা প্রিয়জনকে উপহার দিতে চাইলে রাডো রোলেক্স টাইটান, টাইম জোন, ফসিল, মাইকেল কোর্স, কেলিভন ক্লেন, ফাস্ট ট্র্যাক, ডিজাস্টার, টিসো, এম্পোরিও আরমানি ব্র্যান্ডের ঘড়ি কিনতে পারেন। বসুন্ধরা সিটি শপিংমল, ফিউচার পার্ক বা সীমান্ত স্কয়ারে পেয়ে যাবেন সাধ্যের মধ্যে ফ্যাশনেবল-অভিজাত ঘড়িগুলো।

কয়েক হাজার থেকে শুরু করে কয়েক লাখ টাকার ঘড়িও পাওয়া যায় শোরুমগুলোতে। ঘড়ি কেনার সময় ওয়ারেন্টি কার্ডটি বুঝে নিন ও যত্ন করে রাখুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here